আমার যত ইন্টারভিউ

আমার প্রথম ইন্টারভিউ ছিল সেদিন যখন আমার লাস্ট সেমিস্টারের লাস্ট এক্সাম হবে। আমার বন্ধু সেখানে জয়েন করেছে কয়েক মাস আগে। ডটনেট ফ্রেমওয়ার্কে জব। এখন পরীক্ষা ও ইন্টারভিউ এর সময় এক। কি করা যায়। দেখলাম পরীক্ষা তো ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর উপর, ২ ঘণ্টার পরীক্ষা আধা ঘণ্টায় যদি শেষ করতে পারি, তাহলে ইন্টারভিউ দিতে যেতে পারবো। আমি আসলে বললেই পারতাম যে আমার...

প্রোগ্রামিং মিরাকল

অনেকেই স্রষ্টায় বিশ্বাস করে না, তবে আমি জোরালোভাবেই বিশ্বাস করি। আর কিছু জিনিস আমার বিশ্বাস আর শক্ত করে। আমি আমার নিজের লেখাপড়া ও প্রোগ্রামিং শিখাতেও এই বিষয়টি লক্ষ্য করি। এইচএসসিতে আমার রেজাল্ট খুবই খারাপ ছিল। মেধা দিয়ে সরকারী কোন ইউনিভার্সিটি কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে লেখাপড়া করার চিন্তাই আমার পক্ষে সম্ভব ছিল না। কারণ তখন কেবল সেরা ২০-৩০ জনই এই সাবজেক্ট পেত,...

আপনি কেন এখনই ক্লাউড কম্পিউটিং শিখার বিষয়ে আগ্রহী হবেন

আমি আজকে কয়েকটি কারণ উল্লেখ করতে চাই যে আপনি কেন এখনই ক্লাউড কম্পিউটিং শিখার বিষয়ে আগ্রহী হবেন। মূলত ক্লাউড কম্পিউটিং কোন আলাদা ধরণের সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট নয়। ওয়েব, ডেস্কটপ, মোবাইল এপ এর সব কিছুই ক্লাউড কম্পিউটিং এর উপর নির্ভর করতে পারে। অর্থাৎ আপনি যদি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট করেন যেটা ক্লাউড প্লাটফর্মনে চলে তাহলেই হল। তারমানে আপনি যে ধরণের প্রোগ্রামিংই ক্যারিয়ার হিসাবে বেছে...

একটি CGPA এর গল্প

এটা একটি CGPA এর গল্প। ইউনিভার্সিটিতে প্রথম সেমিস্টারে আমি ৩.৮৯ পাই। আশা ছিল ৪.০০ পাবো। কিসের কি, এটা তুলতেই ঘাম ছুটে গেল। তখনও আমি প্রোগ্রামিং শিখিনি। অন্য বন্ধুরা ৩.৯০+ পেল। কয়েকজন তো ৪.০০ ও পেল। আমি খুব হতাশ হলাম। কি আর করা। বুঝলাম আমি ভালো স্টুডেন্ট না। আমার থেকেও বড় বাঘ আছে। ২য় সেমিস্টারে প্রোগ্রামিং শিখার পর আর ৩য় সেমিস্টারে...

প্রোগ্রামারের ক্যারিয়ারঃ ৩ হাজার থেকে ৪ লক্ষ – যেভাবে সম্ভব

সফলতা কে না চায়? আমরা সবাই ক্যারিয়ারে সফলতা অর্জনের চেষ্টা করা। কিন্তু তারপরও আমরা কেউ সফলতা পাই, কেউ পাইনা। সফলতার জন্য ভাগ্য তো অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ, তবে নিজের চেষ্টা না থাকলে শুধু ভাগ্যের দোহাই দেয়া ঠিক নয়। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে যখন শুনতাম কেউ লাখ টাকা বেতন পায়, তখন রূপকথার গল্প মনে হত। বিশ্বাস করতে পারতাম না। কিন্তু নিজের জীবনে বাস্তবায়ন করতে...

একটি চড়, একজন মা ও একজন প্রোগ্রামারের গল্প

এই লেখাটি আমি আমার মা এর স্মরণে লিখছি, যার জন্য আমি এই পৃথিবীতে বেঁচে আছি ও আজকের অবস্থানে আসতে পেরেছি। এই বছরের মার্চ মাসে আমার মা এই পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন। আপনারা সবাই আমার মা এর জন্য দোয়া করবেন। আজকে আমি একজন প্রোগ্রামার, কিন্তু যদি চিন্তা করি তাহলে এই পথের শুরুটা হয়ত অনেক আগে। আমি প্রথম যে ঘটনাটা মনে করতে...